টেকনাফে অস্থায়ী রোহিঙ্গা শিবিরে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বিনোদন News

টেকনাফে অস্থায়ী রোহিঙ্গা শিবিরে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

বলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ২১ মে সকাল ৮টায় বাংলাদেশে এসে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঘণ্টা তিনেক অবস্থান করার পর কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা দেন। এরপর কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে তিনি উখিয়ায় রয়েল টিউলিপ হোটেলে ওঠেন। তারপর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে টেকনাফের বাহারছড়ার শামলাপুর মনখালি ব্রিজের পাশে অস্থায়ী রোহিঙ্গা শিবিরে যান তিনি। সে সময় তার সঙ্গে ছিলেন ইউনিসেফ ও স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এদিকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া আসছেন—এ খবর আগে থেকে জানার কারণেই অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন সেখানকার অনেকেই। যখন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া গিয়ে পৌঁছলেন, মুহূর্তের মধ্যেই মানুষের ভিড় লেগে যায়। যদিও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য আগে থেকেই পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয় সেখানে। কিন্তু তারপরও সাধারণ মানুষকে সরাতে পুলিশের লাঠিপেটা করতে হয়। টেকনাফে সে সময় প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বেশ কয়েকজন শিশুর সঙ্গে কথা বলেন।

এরপর প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নিয়ে যাওয়া হয় ইউনিসেফ পরিচালিত হাসপাতালে। যদিও হাসপাতালের ভেতরে বাইরের কাউকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। জানা গেছে, প্রিয়াঙ্কা সেখানে রোগীদের সঙ্গে কথা বলেন। হাসপাতালের চিকিৎসকদের কাছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের ব্যাপারে খোঁজখবর নেন। পানিবাহিত রোগের ব্যাপারেও জানতে চান। এরপর বিকেল ৪টা ৭ মিনিটে প্রিয়াঙ্কা গাড়িতে গিয়ে ওঠেন। যাওয়ার আগে হাত নাড়িয়ে বাংলায় বলেন, ‘আবার আসব।’

জানা গেছে, জাতিসংঘের শিশু তহবিলের (ইউনিসেফ) শুভেচ্ছাদূত হিসেবে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে এসেছেন। আর প্রিয়াঙ্কা তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট দিয়ে আজ সকালে জানিয়েছিলেন তিনি রোহিঙ্গা শিবিরে যাচ্ছেন। পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘বিশ্বের যত্নের প্রয়োজন, আমাদের যত্ন নিতে হবে।’

বাংলাদেশ সফরে দুই দিন অবস্থান করবেন এই তারকা। সোমবার দিনব্যাপী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পগুলো ঘুরে দেখবেন। দুই দিনের এই সফরে প্রিয়াঙ্কা ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কিছু কর্মসূচিতে যোগ দেবেন।

মঙ্গলবার সকালে প্রিয়াঙ্কা উখিয়ার বালুখালী ও জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। এরপর বিকেলে টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন তিনি। বুধবার উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। তারপর বৃহস্পতিবার সকালে কক্সবাজার ত্যাগ করবেন বলিউডের এই তারকা।

এর আগে গত বছর সিরিয়ায় যুদ্ধে আক্রান্ত শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা। চলতি বছরের মার্চ মাসে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন এই অভিনেত্রী। শরণার্থীদের বিষয়ে প্রিয়াঙ্কা বলেছিলেন, ‘আমাদের সবাইকে বুঝতে হবে এটি একটি বৈশ্বিক মানবিক সংকট, আঞ্চলিক নয়।’

যুক্তরাজ্যে বান্ধবী মেগানের সঙ্গে প্রিন্স হ্যারির বিয়েতে অংশ নেওয়ার পর লন্ডন থেকে দুবাই হয়ে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজে ঢাকায় এসেছেন এই অভিনেত্রী।

Other News