সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণি জাদুতে স্টেডিয়ামে আনন্দের বন্যা, আতঙ্কিত অস্ট্রেলিয়ানরা ! খেলা News

সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণি জাদুতে স্টেডিয়ামে আনন্দের বন্যা, আতঙ্কিত অস্ট্রেলিয়ানরা !

 

বাংলাদেশের স্পিন বোলাররা রীতিমতো ভীতি জাগিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের অন্তরে। সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণি বলের জাদুতে দিশেহারা হয়ে দলীয় ১৪ রানের মধ্যেই একে একে বিদায় নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তিন ব্যাটসম্যান; ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার, ওয়ানডাউনে নামা উসমান খাজা ও নাইটওয়াচম্যান হিসেবে নামা স্পিনার নাথান লায়ন। উইকেটে রয়েছেন অপর ওপেনার ম্যাট রেনসো এবং অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ।


সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনটি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশের ২৬০ রানের জবাবে দিনশেষে প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ানদের সংগ্রহ ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮ রান।

অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং ইনিংসের সূচনা করতে নামেন ডেভিড ওয়ার্নার ও ম্যাট রেনসো। বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি এই জুটি। দলীয় ৯ রানে মিরাজের বলে এলবিডব্লিউ হন ওয়ার্নার;

 

ব্যক্তিগত ৮ রানে। এর ৫ রান পরেই সাজঘরের পথ ধরেন উসমান খাজা। সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিমের স্মার্ট ফিল্ডিংয়ে রানআউট হন এই অসি ব্যাটসম্যান।

স্কোরবোর্ডে আর কোনো রান যোগ হওয়ার আগে তৃতীয় উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। এবার লায়নকে এলবিডব্লিউ আউট করেন সাকিব। শেষ পর্যন্ত রেনসো ও অসি অধিনায়ক স্মিথ বাকি ক’টি বল দেখেশুনে খেলে দিন শেষ করেন।

বাংলাদেশের পক্ষে একটি করে উইকেটে নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকিব আল হাসান। মিরাজ শিকার করেছেন ওয়ার্নারকে। সাকিব পেয়েছেন লায়ানের উইকেটটি। দু’টি উইকেটই এসেছে এলবিডব্লিউ আউট থেকে। অপরদিকে, উসমান খাজা রানআউট হয়েছেন।

রবিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি। সকালে টস জিতে আগে ব্যাটিং বেছে নেন বাংলাদেশের অধিনায়ক। দলীয় ১০ রানের মধ্যেই বিদায় নেন সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস ও সাব্বির রহমান। তিনজনই আউট হয়েছেন অসি পেসার প্যাট কামিন্সের বলে।

দলের এই প্রাথমিক বিপর্যয় সামলিয়ে হাল ধরেন ওপেনার তামিম ইকবাল ও অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দু’জনে মিলে গড়ের ১৫৫ রানের জুটি। ব্যক্তিগত ৭১ রানে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের শিকারে পরিণত হন তামিম। দলীয় ১৬৫ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

পঞ্চম উইকেট হিসেবে বিদায় নেন সাকিব আল হাসানও; ব্যক্তিগত ৮৪ রানে। বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে তখন দলীয় রান ১৮৮। এরপর বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস খুব বেশি দীর্ঘ হয়নি। বাকি ৫ উইকেট হারিয়ে আরো ১৭২ রান যোগ করে অলআউট হয় মুশফিকবাহিনী; বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ হয় ২৬০ রানে।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে কামিন্স ছাড়াও ৩টি করে উইকেট নেন নাথান লায়ন ও অ্যাস্টন আগার।

Other News