একজন জায়রা ওয়াসীম মতামত News

একজন জায়রা ওয়াসীম

Hafsa Chowdhury‎

ভারতের জম্মু কাস্মীরের শ্রীনগরে জন্ম নেওয়া এক কিশরী। বাবা ব্যাংকার( কাস্মীরী) মা (পাঞ্জাবী)একটি লোকাল স্কুলের শিক্ষিকা, ছোট ভাইকে নিয়ে মধ্যবিত্ত এক মুসলিম পরিবার। সেন্ট পল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের দশম গ্রেডের ছাত্র। ছোটবেলা থেকেই মিডিয়া জগতের প্রতি ফ্যাসিনেশন। সুযোগও হয়ে গেলো! পুরো রঙ্গিন দুনিয়া হাতের মুঠোয়। ডেবিউ মুভি দিয়েই মাত করে দিলেন। পেলেন অনেকগুলো পুরষ্কার। কিশরী তার সমহিমায় আলো ছড়িয়ে যাচ্ছিলেন! দ্বিতীয় মুভিতেও তাই করলেন। অসাধারন উপস্হাপনা, অসাধারন অভিনয়।

একটু একটু করে কিশরী তার তারুন্যে পা রাখলেন। আর আশে পাশের চেহারাগুলো চোখের সামনে পরিষ্কার হতে শুরু করলো। ভয়াল কালো থাবাগুলো তাকে গিলতে আসছে। নিজের বিবেকের দরজায় দাঁড়িয়ে গেলেন তরুনী! যারা তার 'দাঙ্গাল' এবং 'সিক্রেট সুপারস্টার' মুভি দেখেছেন। দুটো সিনেমার কনটেন্ট একই। পুরুষতান্ত্রিক সমাজের বাহিরে এসে মেয়েদের নিজেদের ফিল্ড তৈরি করা। এই খ্যাতি তার বিরম্বনার কারন হয়ে দাঁড়ালো।

সেই সময়কার জায়রার ফেসবুক, টুইটার দেখলেই বুঝতে পারবেন বয়ঃসন্ধি কালে একটা মেয়েকে কতটা বিপর্যস্ত পরিবেশের সম্মুখীন হতে হয়েছে। চলচিত্র জগতে যে আলোর ঝলকানি! কিশোরী জায়রার চোখ তাতে ঝলসে যায়নি। বরং তাকে মানসিকভাবে ভেঙ্গে ফেলেছে। কোন এক টুইটারে তিনি বলেছেন, দুবছর তিনি সাইক্রাটিষ্টের তত্তাবধানে ছিলেন। ডিপ্রেশনে মাঝে মাঝে তার আত্মহত্যা করতেও ইচ্ছে হয়েছে।
২০১০ সালের ১০ ই ডিসেম্বর এক চলচিত্রের সহযোগী দ্বারা যৌন হয়রানি স্বিকার হন। তার এক পোষ্টে তিনি লেখেন,

"It was all chill till I felt somebody brushing against my back while I was half asleep. I ignored it the first time. Blamed the turbulence for it. Until I woke me up to this pleasant sight of his beautiful foot rubbing my back and neck."

চলচিত্রের রঙ্গীন দুনিয়ায় থাকার জন্য যে দৃঢ় মনোবল থাকা দরকার জায়রার ছিলো না। এটা তার দোষ নয়। সবাই সবকিছু মেনে নিতে পারে না। একটি মধ্যবিত্ত মুসলিম পরিবারের মেয়ের পক্ষে সেই আবহে গা ভাসিয়ে দেওয়া হয়তো কষ্টই ছিলো! এক পোষ্টে তিনি বলেন,

'আমি আমার অন্তর আত্নার সাথে লড়েছি ঐ দিনগুলোতে। ছোট জীবনে এত বড় লড়াই আর আমি লড়তে পারবো না'

তাই নামিদামী বোদ্ধারা, আপনারা আপনাদের মন্তব্যগুলো আর একবার ঝালাইকরুন। তার কষ্টটাকে রাজনৈতিক কোপানলে ফেলে দুপাশ থেকে টানা হ্যাচরা করে তার স্বপ্নগুলোকে ভেঙ্গে দিবেন না, প্লিজ। প্রত্যেকের নিজের মত অনুযায়ি জীবনে চলার অধিকার আছে।এমন না যে এর আগে কেউ সিনেমা জগত থেকে বেরিয়ে আসেনি! তখনও যেমন কোনো পরিবর্তন,ঝড় ওঠেনি, আজ জোর করে তাকে ঝড়ের মুখে ফেলবেন না! আর জায়রাতো একজন সদ্য পা দেওয়া তরুনী। তাকে সামনে এগুতে দিন। সুস্থভাবে তাকে বাঁচতে দিন। আমীন।

Other News